মনিরুজ্জামান মনির, শৈলকুপা প্রতিনিধি : এবছরের শেষ দিকে অথবা নতুন বছরে শুরুতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

জাতীয় নির্বাচন ঘিরে নিজেদের ঘর গোছাতে এখন ব্যস্ত দক্ষিণের জেলা ঝিনাইদহের রাজনৈতিক দলগুলো। মিছিল, মিটিং আর দলীয় মহড়ায় এগিয়ে চলছে গণসংযোগ। নিজেদের অবস্থান ধরে রাখতে মরিয়া আওয়ামী লীগ। বসে নেই বিএনপি ও অন্যদলগুলোও। যদিও, নেতৃত্বের আসনে যোগ্য প্রতিনিধিকে দেখতে চান ভোটার ও সুশীল সমাজ।

ঝিনাইদহ জেলা ভৌগোলিক অবস্থান, ইতিহাস ও প্রত্নতত্ব। নানা বিবেচনায় প্রাচীন জনপদ হিসেবে পরিচিতি আছে।

বীর শ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান, গাজী কালু চম্পাবতী কিংবা মরমী কবি পাগালা কানাই। এমন বহু গুণীজনের জন্মস্থান ঝিনাইদহে।

এক হাজার ৯৫০ বর্গকিলোমিট আয়তনের ঝিনাইদহ জেলায় জনসংখ্যা ১৭ লাখের বেশি। ৬টি উপজেলা নিয়ে নির্বাচনী আসন আছে ৪টি। যেখানে নারী-পুরুষ মিলিয়ে মোট ভোটার ১৩ লাখের উপরে।

গত ৪টি জাতীয় নির্বাচন ঝিনাইদহে বিএনপির চেয়ে এগিয়ে ছিলো ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

নির্বাচনকে সামনে সময় যত গড়াচ্ছে সরগরম হচ্ছে জেলার ভোটের মাঠ। অবস্থান জানান দিতে প্রতিদিনই চলছে রাজনৈতিক দলের শোডাউন।

ঝিনাইদহ-১ নির্বাচনী আসনে রাজনৈতিক দলের কর্মী থেকে সাধারণ মানুষ, আলোচনার মূল বিষয়ই এখন ভোট। দলের মনোনয়ন পেতে মরিয়া জেলা-উপজেলার সম্ভব্য প্রার্থীরা।

আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠন বলছে, দেশের উন্নয়ন আর ডিজিটাল জোয়ারের কারণে জনগণ সবসময়ই তাদের পাশে আছে।

এদিকে বিএনপি বলছে, জুলুম-নির্যাতনের মাঝেও সু-সংগঠিত তারা। নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে সব আসনেই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

ঝিনাইদহ – ১ শৈলকুপা আসনে বিগত বছরের ফলাফল ১৯৭৩-২০১৪ সাল। ১৯৭৩ নির্বাচনে প্রথম ক্ষমতায় আসে বর্তমান রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ, ১৯৭৯ জাসদ, ১৯৮৬ আওয়ামী লীগ, ১৯৮৮ জাসদ, ১৯৯১ বিএনপি, ১৯৯৬ বিএনপি, ২০০১ আওয়ামী লীগ, ২০০৮ আওয়ামী লীগ, বর্তমান ২০১৪ নির্বাচনে ভোটারদের ভোটে নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুল হাই।

শৈলকুপা উপজেলা ১টি পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়ন নিয়ে ঝিনাইদহ-১ শৈলকুপা সংসদীয় সীমানা। মোট ভোটারের সংখ্যা ২ লাখ ৭৩ হাজার ৫৫ । বর্তমানে এমপি আব্দুল হাই।

উল্লেখ্য, ২০১৪ নির্বাচনে প্রায় লক্ষাধীক ভোটে পরাজিত করেন আওয়ামী লীগরে বিদ্রোহী প্রার্থী নায়েব আলী জোয়াদ্দারকে।২০১৪ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল হাই সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং এক বছর সরকারের মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্বপালন করেন।

ঝিনাইদহ-১ শৈলকুপা আসনে মনোনয়ন পেতে বর্তমান রাজনৈতিক দল থেকে ৮ প্রার্থী । জাতীয় পার্টি থেকে ১ প্রার্থী। অন্য দিকে বিএনপি মনোনয়ন প্রত্যাশীতেও রয়েছে ৩ প্রার্থী।

মনোনয়ন প্রত্যাশী, শৈলকুপা উপজেলা বিএনপি সভাপতি ও সাবেক সাংসদ সদস্য আব্দুল ওহাব, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. আসাদুজ্জামান ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জয়ন্ত কুমার কুন্ডু। মনোনয়ন প্রত্যাশীর নাম প্রকাশ হলেও প্রকাশ্যভাবে এখনো তাদের মাঠে দেখা যায়নি। তবে তারা বলছেন- দলীয় নির্দেশ ও অবস্থান বুঝে তারা নির্বাচনী প্রচারণার কাজ শুরু করবেন।

সরকারের সাফল্য প্রচারনা এবং শারদীয় স্বরসতী পূঁজা উপলক্ষে বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুল হাই ও বাংলাদেশ কৃষক লীগের আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম দুলাল ব্যাপক গনসংযোগ করেন। এছাড়াও আগের থেকে যারা মাঠে ছিলেন তাদের মধ্যে নায়েব আলী জোয়াদ্দার, এ্যাড. কাজী আজাদ, আসাফোর কেন্দ্রিয় সভাপতি সাইদুর রহমান সজল, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, সাবেক রাষ্ট্রদূত ওয়ালিউর রহমান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আবেদ আলী, পৌরমেয়র আশরাফুল আজম এবং জাতীয় পার্টির মনিকা আলমের ফেস্টুন দেখা গেলে ও তেমন প্রচারণা নেই।

মনোনয়ন পেতে মরিয়া হলেও আগামীর নেতৃত্বে নতুনত্ব আর চমক দেখতে চান সুশীল সমাজসহ নবীণ প্রবীণ সবাই। আগামী বছরে একাদশ জাতীয় সংসদ এনির্বাচনের মধ্য দিয়ে ভোটারের ভোটে গঠিত হবে নতুন সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here