য‌শোর প্র‌তি‌নি‌ধিঃ বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস কর্তৃক পাসপোর্টযাত্রী হয়রানি ও উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।
মঙ্গলবার ভারতীয় এ পাসপোর্ট যাত্রী রুপালী দে ও রাখালচন্দ্র হালদার অভিযোগ করে বলেন কাস্টমস (এ আর ও) বিজন কুমার ওরফে টাক বিজন ও রহিমা আক্তার ওরফে পাকরা রহিমা তাদের নিকট থেকে পৃথক ভাবে ৩০০০ হাজার টাকা চায়। টাকা না দিতে পারায় তাদের সকল পণ্য তারা রেখে দেয়।

পাসপোর্ট যাত্রী রুপালী দে ( পাসপোর্ট নাং এস ০০০৩৪৪৯) বলেন সে বাংলাদেশে দ্বিতীয়বার তার আত্মীয় বাড়ি খুলনা বেড়াতে আসার সময় তার ব্যাগে ব্যবহৃত ৮টি শাড়ি নিয়ে আসছিল । আত্মীয় বাড়ি কয়েকদিন সে থাকবে তার জন্য বাড়ি থেকে তার গাঁয়ের একসেট সহ আরো ৮টি কাপড় নিয়ে আসে। এজন্য (এ আর ও) রহিমা খাতুন তার নিকট ৩০০০ হাজার টাকা দাবি করে। তখন রুপালী বলে আমি কেন আপনাকে তিন হাজার টাকা দিব আমি তো অবৈধ কোন পণ্য আনি নাই। আমি আমার ব্যবহৃত পণ্য এনেছি।
তখন রহিমা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে বেয়াদব মহিলা বলে কাপড়গুলি রেখে একটি স্লিপ রেখে দেয়। অপরদিকে রাখাল চন্দ্র হালদার বলেন ( পাসপোর্ট নং- জেড ৪৮৮০৬১৫) আমি ভারতীয় রুপির মাত্র ৭ হাজার টাকার বিভিন্ন পণ্য নিয়ে বাংলাদেশে আমার আত্মীয় বাড়ি বেড়াতে যাওয়ার জন্য আসি। তখন (এ আর ও) বিজন কুমার আমার নিকট থেকে ২০০০ হাজার টাকা দাবি করে। এ দাবিতে আমি রাজি না হলে তিনি আমার পণ্য কেড়ে রেখে দেয়, এবং একটি স্লিপ হাতে ধরিয়ে দেয়।

দৈনিক ভোরের সূর্য়/তোফাজ্জল হায়দার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here