বিএনপি থেকে অবসর নেওয়ার তিন বছর পর বিকল্পধারায় যোগদান প্রসঙ্গে শমসের মবিন চৌধুরী বলেছেন, ‘আমি যখন রাজনীতি থেকে অবসর নিই, একটা কথা তখন উল্লেখ করেছিলাম। শারীরিক সুস্থতার সাপেক্ষে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধকে সামনে রেখে যদি দেশ ও জাতির জন্য কোনও ধরনের অবদান রাখার সুযোগ আসে, ভূমিকা রাখার সুযোগ পাই, তাহলে নিজেকে আমি সেই কাজে সম্পৃক্ত করবো। সেই প্রতিশ্রুতির ধারাবাহিকতায় আজকে বিকল্পধারায় যোগ দিলাম।’

শুক্রবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিকল্পধারায় যোগদানের পর তিনি এসব কথা বলেন।

শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, ‘আমি ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে, সাহসী নেতৃত্বে দেশপ্রেমের নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক বীর মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমানের আদর্শে রাজনীতিতে আস্থা রেখে, বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের প্রতি সম্মান দেখিয়ে আজ আমি আপনাদের সামনে দাঁড়িয়েছি। যেন আগামীতে বাংলাদেশকে একটি সুখী, শান্তিপূর্ণ, সমৃদ্ধ ও গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে নিজেদের অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখবো।’

তিনি বলেন, ‘ভবিষ্যৎ প্রজন্ম দম্ভের রাজনীতি দেখতে চায় না। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম নাশকতার রাজনীতি দেখতে চায় না। এই নাশকতা মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করা হোক বা লগি-বৈঠা দিয়ে মানুষকে পিটিয়ে হত্যা করা হোক। এই নাশকতা বাংলাদেশের বর্তমান প্রজন্ম দেখতে চায় না।’

সাবেক পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘একত্রিত হয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে নিজেদের স্বার্থের উর্ধ্বে ওঠে বাংলাদেশের জন্য কী করতে পারি, সেই চেষ্টা করবো। আমাদের এই যাত্রায় নেতৃত্ব দেবেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি বি. চৌধুরী।’

শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, ‘আমি প্রতিশ্রুতি করতে পারি, আমার সীমাবদ্ধতার মধ্যে যদি একটুও অবদান রাখতে পারি এই ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য, যাদের কথা মাথায় রেখে আমরা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছিলাম।’

প্রসঙ্গত, শমসের মবিন চৌধুরী বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার সাহসিকতার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে বীর বিক্রম খেতাব প্রদান করে।

২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বে সরকার ক্ষমতাসীন হবার পর শমসের মবিন চৌধুরী পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পর তিনি বিএনপিতে যোগ দেন। বিএনপিতে যোগ দেবার পরে তিনি দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন। কিন্তু ২০১৫ সালের অক্টোবরে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ান শমসের মবিন চৌধুরী। তখন শুধু দলীয় পদ নয়, রাজনীতি থেকেই অবসরের কেথা জানিয়েছিলেন তিনি।

এর প্রায় তিন বছর পর আজ বি চৌধুরীর বিকল্পধারায় যোগদানের মাধ্যমে ফের রাজনীতিতে সক্রিয় হলেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here