গত বছরের এপ্রিলে রোশন সিংয়ের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন শ্রাবন্তী। ইতিমধ্যেই চিড় ধরেছে সম্পর্কে।

টিকছে না তার তৃতীয় বিয়েও! তেমনই ইঙ্গিত দিচ্ছে নায়িকার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল।
গত কয়েকদিন ধরেই টলিগঞ্জের অন্দরে এই জল্পনা ঘুরে বেড়াচ্ছে। নব দম্পতি গত বছর দুর্গাপূজায় একসঙ্গে চুটিয়ে আনন্দ করেছেন। ষষ্ঠী থেকে দশমীর সিঁদুর খেলা- সামাজিক মাধ্যমে ভরে গিয়েছিল একগুচ্ছ রোমান্টিক ছবিতে।

তবে এবার সব গায়েব।
বরং শ্রাবন্তী-রোশনের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে গিয়ে দেখা মিলল আরও ভয়ঙ্কর কিছু ব্যাপার! একে অপরকে ইনস্টাগ্রামে আন-ফলো করে দিয়েছেন দুজনেই।

শুধু বিয়ের নয়, দুজনের একসঙ্গে থাকা যাবতীয় ছবি ডিটিল প্রোফাইল থেকে। শ্রাবন্তীর ইনস্টার দেওয়ালে শুধু দুটি গ্রুপ ছবিতেই রয়েছেন রোশন। শুধু রোশন-শ্রাবন্তী নয়, নায়িকার প্রথম পক্ষের ছেলে অভিমন্যু চট্টোপাধ্যায়ের ইনস্টা প্রোফাইলেও তিনজনের বেশকিছু ছবি ছিল কিন্তু সবই গায়েব! কিষাণ বিরাজের সঙ্গে বিয়ে ভাঙার পরও তো এমনটাই হয়েছিল!

শ্রাবন্তী-রোশনের সংসার ভাঙার গুঞ্জনে বিতর্কের ঘি ঢেলে দিয়েছেন রোশন নিজেও। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ ১৮ বাংলাকে রোশন জানিয়েছেন, ‘দশমীর প্রায় ১০ দিন আগে থেকেই আমি আর শ্রাবন্তী আলাদা থাকছি। ’

তবে আলাদা থাকার কারণ স্পষ্ট করে কিছুই বলেননি রোশন। কিন্তু পূজার আগে থেকেই যে তারা আলাদা থাকছেন তেমনটা জানিয়েছেন রোশন সিং।

১৩ আগস্ট রোশন-শ্রবান্তীর জন্মদিন। একইদিনে জন্মেছেন দুই তারকা। পরের দিন শ্রাবন্তীর ছেলে অভিমন্যু’র জন্মদিন। জন্মদিনে একসঙ্গে মন্দারমনি গিয়েছিলেন তারা। তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সেভাবে একসঙ্গে পাওয়া যায়নি এই দম্পতিকে। এই বছরের জন্মদিনে একে অপরের জন্য করা বার্থ ডে পোস্টও ডিলিট করে দিয়েছেন তারা।

নির্মাতা রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী, তাদেরই ছেলে অভিমন্যু। দীর্ঘদিন আলাদা থাকার পর ২০১৬ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ হয় তাদের। সেই বছরই মডেল কিষাণ বিরাজের সঙ্গে আইনি বিয়ে সেরে ফেলেন শ্রাবন্তী। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই ভেঙে যায় সেই বিয়ে। এরপর ২০১৯-এর শুরু থেকেই রোশন-শ্রাবন্তীর প্রেমের গুঞ্জন দানা বাঁধতে থাকে। মার্চ মাসে শ্রাবন্তী-সোহম জুটির গুগলির প্রিমিয়ারে রোশনকে নিয়ে হাজির হন নায়িকা। তখনই আন-অফিসিয়্যাল সিলমোহর পরে গিয়েছিল সম্পর্কে। এরপর চুপিসারে পাঞ্জাবে গিয়ে বিয়ের পর্ব সেরে দেন দুজনেই।

সংসার ভাঙা নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি শ্রাবন্তী। সব যখন ভালোই চলছিল, তখন হঠাৎ কী হল- ভেবে পাচ্ছেন না ভক্তরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here