মঙ্গলবার সকালে এ পেঁয়াজ ঢাকায় পৌঁছায়। পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দাম বাড়ায় বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে। চ্যানেল২৪

আমদানি পর্যায়ে যথাযথ তদারকি বা নজরদারি না থাকায় নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না পেঁয়াজের বাজার। তাছাড়া আমদানির পর তিন থেকে পাঁচ স্তরে মধ্যস্বত্বভোগীর হাত ঘুরে ভোক্তার কাছে পৌঁছাতেই দাম বেড়ে যায় কয়েকগুণ। যারা সুযোগ নিচ্ছে সংকটের। পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দামের পেছনে এসব বিষয়কে মূল কারণ বলছেন সংশ্লিষ্টরা। টেকনাফসহ বন্দরগুলোর আমদানি তথ্য পর্যালোচনা করে দাম নির্ধারণ করা হলে কারসাজি বন্ধ হবে বলেও মত তাদের।

দামের অস্বাভাবিক উত্থান পতনে টালমাটাল দেশের পেঁয়াজের বাজার। দেড়মাসেরও বেশী সময় ধরে উর্ধমুখি দামের রাশ টানা যাচ্ছেনা কোনভাবে।বাজার সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, বর্তমানে চাহিদার তুলনায় পেঁয়াজের সরবরাহ কম হলেও শুধুমাত্র এই কারণে দাম দুশো টাকা পার হওয়ার কোন যুক্তি নেই। কেননা, আমদানীমূল্য পড়ছে গড়ে কেজিপ্রতি ৫৫ থেকে ৬৫ টাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here