সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের বদরপুর গ্রামে খাসজমিতে বসবাসরত হতদরিদ্রদের দখলভূমি জনৈক বিত্তবান প্রভাবশালী কর্তৃক জবরদখলের অভিযোগ উঠেছে।

এব্যাপরে খাসজমিতে বসবাসরত হতদরিদ্রের পক্ষে বদরপুর গ্রামের চন্দন পাল,বিরাজ পাল, মানিক পাল যৌথভাবে প্রভাবশালী দখলদার উচ্ছেদে জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে গত ৬জানুয়ারি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।

লিখিত অভিযোগে এবং স্থানীয় মুরুব্বিয়ানদের বক্তব্যের ভিত্তিতে জানা যায়, উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের রাধানগর মৌজার জেএলনং-১৫ খতিয়ান নং-০/১ দাগনং ৪২৮৫ জায়গাসমূহ সরকার আওতাধীন খাসজমি। এখানে প্রায় এক একর ভূমি রয়েছে ভূমিহীনদের নামে বন্দোবস্থ প্রাপ্ত। এবং আরো প্রায় আধা একর খাসজমি রয়েছে বন্দোবস্থ ব্যতীত এলাকাবাসীর মতামতে তৎকালীন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ধর্মরাজ চৌধুরী কর্তৃক ভূমিহীনদের মাঝে বসবাসের দখল প্রাপ্ত। সেখানে পার্শ্ববর্তী রাধানগর ও বদরপুর গ্রামের প্রকৃত ভূমিহীন হতদরিদ্র লোকজন কিছু অংশে বন্দোবস্থ নিয়ে এবং কিছু অংশে স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মতিক্রমে ও ঘরবাড়ি নির্মান করে প্রায় দুই দশক ধরে বসবাস ভোগদখল করে আসছেন।

সম্প্রতি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের স্থানীয় নেতার মদদপুস্ট বদরপুর গ্রামের জনৈক প্রভাবশালী খোকন মিয়া কথিত ভূমিহীনদের দখলকৃত জায়গা জোরপূর্বক বেদখল করে তার নিজের রেকর্ডকৃত জায়গা বলে ঘোষণা দিয়ে গৃহনির্মাণের উদ্দেশ্যে মাটিভরাট করছেন। এঅবস্থায় হতদরিদ্র ভূমিহীনরা বাঁধা দিতে গেলে খোকন মিয়া তার লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে নিরীহ ভূমিহীনদের মারধোর করার হুমকি ধামকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন। এবং সেখানে ভূমিহীন নিরীহ লোকদের চলাচলের গোপাট দখল করে কয়েকটি পরিবারের ঘর থেকে বের হবার রাস্তা বন্ধ করে দেন।

অভিযোগকারীরা জানিয়েছেন খোকন মিয়া সেখানে বাড়ী নির্মানের জন্য গোপাটে মাটি ভরাট করছেন। তারা আরো জানান, দখলদার খোকন মিয়া একজন বিত্তশালী লোক। তার প্রচুর ভূ-সম্পত্তি রয়েছে। এছাড়াও তার পরিবারে দুইজন প্রবাসী রয়েছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সাথে তার লিঁয়াজু থাকায় তিনি রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে নিরীহ ভূমিহীনদের মাঝে এসব দখলদারিত্ব চালিয়ে যাচ্ছেন।

এব্যাপরে জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিৎ দেব বলেন, আমি সার্ভেয়ারকে পাঠাবো। যদি রিসেন্টলি অবৈধ দখলদার হয় তবে আইন অনুযায়ী উচ্ছেদ করা হবে।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here