দল সমর্থিত প্রার্থীদের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেন। তিনি আরও অভিযোগ করেন, প্রতিহত করতে গেলে বিএনপির কর্মীদের পুলিশে ধরিয়ে দেওয়ারও হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর খিলগাঁওয়ের ৭৫ নম্বর ওয়ার্ডের ত্রিমোহনী বাজারে পঞ্চম দিনের নির্বাচনী প্রচারণার শুরুতেই এসব কথা বলেন ইশরাক।

ইসির ওপর বিরক্ত ইশরাক বলেন, জনগণকে সাথে নিয়ে সব অপশক্তি মোকাবিলা করে দৃঢ় প্রত্যয়ে এগিয়ে যাব। কারও কোনও বাধা আমরা মানব না। আর কোনও নালিশও কাউকে দেব না। মহান আল্লাহ তায়ালার ওপর ভরসা আছে। আমাদের সঙ্গে জনগণ রয়েছে। জনগণই আমাদের শক্তি।

তিনি বলেন, ‘১৩ বছর ধরে দেশকে তিলে তিলে ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। দেশে গণতন্ত্র নাই, কারো কথা বলার অধিকার নাই এবং উন্নয়নের নামে ধোঁয়া, কিন্তু আমরা কোনো উন্নয়ন দেখতে পাচ্ছি না। ঢাকা আজকে সবচেয়ে দূষিত শহর এবং বসবাসের অযোগ্য শহরের তালিকায় এক নম্বরে আছে। আমি যখন এলাকায় আসি, যে রাস্তা দিয়ে এসেছি, তখন রাস্তাঘাটে যে দুর্দশা দেখেছি, যে বেহাল অবস্থা দেখেছি এবং দুই পাশে যে জলাশয়গুলো রয়েছে, সেগুলোর যে করুণ দশা দেখেছি, দেখে আমার সত্যিই খারাপ লেগেছে’।

ইশরাক বলেন, ‘এই সরকার বলে তারা উন্নয়ন করেছে, স্যাটেলাইট পাঠাচ্ছে অমুক সেতু-তমুক সেতু, কিন্তু এগুলো সবই আসলে দুর্নীতির প্রজেক্ট। প্রত্যেকটা মেগা প্রজেক্ট করছে সেখান থেকে লক্ষ, হাজার, কোটি টাকা বিদেশে পাচার করছে। বিদেশে আরাম-আয়েশে ফুর্তি করছে। আর বাংলাদেশের সাধারণ জনগণ, আমরা নাগরিকরা রয়েছি দিন দিন আমাদের দুর্দশা বেড়েই চলেছে’।

বিএনপির এই প্রার্থী বলেন, ‘আমি আপনাদের কাছে প্রতিজ্ঞা করতে চাই। যদি আগামী ৩০ তারিখে আপনারা ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেন, সেখান থেকে আপনাদের যে অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার আন্দোলন, সেটিকে চূড়ান্ত রূপ দেওয়ার জন্য আমি সব কার্যক্রম করব। আপনাদের কাছে প্রতিজ্ঞা করছি, আমি সব সময় সুখে-দুঃখে আপনাদের পাশে থাকব এবং এই উন্নয়নে যত যা কিছু আছে আমি আমার রক্ত-ঘাম দিয়ে, পরিশ্রম করে এই এলাকা উন্নত করব। এই এলাকার পরিবেশকে দূষণমুক্ত করার জন্য সবকিছু করব’।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here